পর্নার প্ল্যানে ব্যাঘাত ঘটাতে ইশার নতুন চক্রান্ত। সৃজন ও পর্ণা আবারও সুখী

“যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে” – এই মূল উক্তিটি নিম ফুলের মধু ধারাবাহিকের নায়িকা পর্ণা, যা জি বাংলার অত্যন্ত সফল ধারাবাহিক। এটি মেয়েদের প্রতি নতুন আগ্রহ এবং ক্ষমতার প্রতি এক উদাহরণ, এবং পর্ণা এই মোড়ের প্রদর্শনের মাধ্যমে দর্শকদের সামনে এক নতুন দিকে নেয়ায়। ধারাবাহিকের মৌলিক চরিত্রে অভিনয় করছেন পল্লবী শর্মা এবং রুবেল দাস।”

ধারাবাহিকের বর্তমান প্লট অনুযায়ী, শেষে সমস্ত ঝামেলা ও অশান্তি অবসান পানে পর্ণা। তবে এই শান্তির দিনগুলি কতদিন বজায় রয়েছে তা এখন দেখার বিষয়। হৃদয়ে উঠা মাখো মাখো প্রেমের সঙ্গে, পর্ণা ইতিমধ্যেই কৃষ্ণার মনে অশান্তির ছায়ায় পড়েছে।

ধারাবাহিকের সর্বশেষ পর্বে পর্ণা সৃজনের একটি ওয়েস্টার্ন জামা কেনে আসে, তবে তা পর্ণা একদিন পরে ফেলে দেয়। এরপর তারা একসঙ্গে গান বাজিয়ে সময় কাটাতে থাকে। এই সময়ের মধ্যে, কৃষ্ণা রাতে হুমকির সাথে বেরিয়ে যাচ্ছে, এবং তার মনে অশান্তির ছবি ঘোরায় থাকছে।

মাঝরাতে উঠে পড়ে, পর্ণা সৃজনের ঘরে আড়িপাতে এসে থাকে। তাদের কথোপকথন শুনে কৃষ্ণার মনে হয়, এরপর তার বাবু তাকে পাত্তাই দেবে না হয়তো। তার এই অসুস্থ মানসিকতার পিছনে এই প্রশ্নটি করা মুশকিল, যে কি যুক্তি কাজ করছে সেটা বোঝা কঠিন।

অন্যদিকে, সকাল হতে না হতেই জেঠু চিনি ছাড়া চা খায়ে সবাইকে চমকিয়ে দেয় রুচিরা। তারপর পর্ণা সবাইকে তার মনের ইচ্ছার কথা জানায়। সে নিয়ে নিয়ে নিশ্চিত হয় যে তার শাড়ি একটি রি-লঞ্চ করবে এবং সেখানে অনেক নতুন কালেকশন থাকবে, যার থিম হবে “বারো মাসে তেরো পার্বণ।” এই কথাটি শোনলেই বাড়িতে সবাই খুব উত্সাহিত হয়ে যায়, তবে মৌমিতা আবারও মনে জট পাকাতে শুরু করে। সঙ্গে সঙ্গে, ইশা তাকে ফোন করে সব বিষয় জানাতে। ইশা এই সুযোগটি নেয় এবং নতুন করে পর্ণাকে বিপদে ফেলার চেষ্টা করে।

Leave a Comment